মুখে যতই বলুন না কেন, বেশি দিন বাঁচতে কে না চায়? প্রিয়জনদের থেকে দূরে যেতে কারই বা মন চায়? এই মনের কথাই বোধহয় পৌঁছে গিয়েছে বিজ্ঞানীদের কাছে। দীর্ঘজীবী হওয়ার রহস্য সামনে এনেছেন তাঁরা। কে বলতে পারে বিজ্ঞানীদের এই রহস্যভেদে আপনিই হয়ত হবেন পরবর্তী শতায়ু।

কোনও গল্প কথা নয়। প্লস জেনেটিক জার্নালে সম্প্রতি দীর্ঘজীবী হওয়ার এই উপায়ই সামনে এনেছেন বিজ্ঞানীরা। তাঁরা জানাচ্ছেন, বায়োলজিকাল এজিং, অটো ইমিউনিটি, অ্যালজেইমার— এই তিনটি বিষয়ের উপরই নির্ভর করে আপনি ১০০ বছরের বেশি বাঁচবেন না কি কম।

এই সমস্ত ক্ষেত্রে জিনের সঙ্গে মার্কার লিঙ্ক করে বিজ্ঞানীরা গবেষণা করেছেন। তাতেই তাঁরা দেখেছেন বেশ কিছু রোগের জিন শতায়ুদের নেই। যা অন্যদের মধ্যে রয়েছে। এমন ১৪টি রোগ চিহ্নিতও করা হয়েছে। সেগুলি নিয়ে শুরু হয়েছে গবেষণা। এ বার শুধু দীর্ঘজীবী হওয়ার ইচ্ছা অপেক্ষা মাত্র!