চুম্বন হল প্রেমের প্রথম চিহ্ন। প্রেমকে প্রকাশ করার একটা অন্যতম মাধ্যম। চুম্বনের মধ্যে একটা মিষ্টি ছোঁয়াও আছে। যা প্রেমের মাত্রাকে দ্বিগুণ করে দেয়। কিন্তু ভাবলে অবাক হবেন যে, এই চুম্বনই নাকি ছড়ায় ক্যানসারের জীবানু। আপনার প্রিয় মানুষটিকে ঠেলে দেয় সাক্ষাত মৃত্যুর দিকে!

অবাক হচ্ছেন? হওয়ারই কথা। কিন্তু এমনটাই দাবি গবেষকদের। সম্প্রতি মেইল সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে এমনই একটি প্রতিবেদন। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘ধূমপানের থেকেও চুম্বন অধিকতর বিপদজনক। মাথা ও ঘাড়ে ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়াতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রয়েছে এই চুম্বনের।

গবেষকদের মতে, চুম্বনের মাধ্যমে হিউম্যান পাপিললোমা (এইচপিভি) নামে একটি ভাইরাস স্থানান্তরিত হয়। ওরাল সেক্সের মাধ্যমে এই ভয়াবহ ভাইরাস দেহে ছড়িয়ে পড়তে পারে। বিশেষ করে ‘ফ্রেঞ্চ কিসের’ সময়।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, গলবিলে অর্থাৎ ঘাড় ও গলাতে অবস্থিত পরিপাকনালীর অংশ এইচপিভি আক্রান্তদের সাধারণ মানুষের থেকে ২৫০ বার বেশি ক্যানসারের ঝুঁকি থাকে। এইচপিভি সাধারণভাবে সার্ভিক্যাল ক্যানসারের (জরায়ু মুখের ক্যান্সার) সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত হলেও এটি নারী-পুরুষ উভয়কে সংক্রমিত করে।

অস্ট্রেলিয়ার মাথা ও ঘাড় বিশেষজ্ঞ ডাক্তার মাহিবান থমাস জানিয়েছেন, সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গেছে, যৌন আকাঙ্ক্ষার পাশাপাশি সাধারণ চুম্বনেও এইচপিভি স্থানান্তরিত হতে পারে। আর ‘ফ্রেঞ্চ কিসিং এর মাধ্যমে সঙ্গীদের মধ্যে এই ভাইরাস ছড়ায় বেশি।