চর্বি মানুষের ওজন বাড়ায় এবং স্থুলতায় আক্রান্ত করে। কিন্তু সব চর্বিই কিন্তু ক্ষতিকর নয়। চর্বি ভেঙ্গে শক্তিরুপে জমা করা কিন্তু ভালো। এই উপায়ে মানবদেহ নিজেকে সচল রাখা, রোগমুক্তি এবং বেড়ে ওঠার জন্য খাদ্যকে ব্যবহার করে। চর্বি থেকে জমা করা শক্তি আপনাকে কঠোর সব তৎপরতা চালাতে সহায়তা করে। এখানে স্বাস্থ্যকর উপায়ে ওজন বাড়ানোর শ্রেষ্ঠ উপায়গুলো বাতলে দেওয়া হলো…

১. চার ঘন্টার বেশি খাবার না খেয়ে থাকবেন না
আপনার দেহের নিরবিচ্ছিন্নভাবে খাবার দরকার। ফলে আপনি যদি কোনো বেলায় না খেয়ে থাকেন তাহলে আপনার দেহ প্রয়োজনীয় জ্বালানি থেকে বঞ্চিত হয়। এবং দেহের অনেক গুরুত্বপূর্ণ টিস্যু মরে যায়। সুতরাং সুস্থ থাকলে চাইলে প্রতি তিন থেকে পাঁচ ঘন্টার মধ্যে অল্প করে হলেও খাবার খান।

২. একবারে বেশ কিছু খাবার খান
প্রতিবেলায় সবসময়ই একবারে অন্তত তিন ধরনের খাবার খাবেন। প্রতিবেলায় যদি পূর্ণ শস্য, ফল এবং সবজি এই তিন জাতীয় খাবার খেতে পারেন তাহলে সবচেয়ে ভালো হবে।

নানা ধরনের খাবার খেলে আপনার দেহ সারাদিন ধরে সচল থাকার  জন্য প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদানগুলো পাবে।

৩. স্বাস্থ্যকর কিন্তু ঘন খাবার খান
এমন পুষ্টি উপাদান সমৃদ্ধ খাবার খান যার অল্প পরিমাণের মধ্যেই প্রচুর পরিমাণ কার্বোহাউড্রেট, প্রোটিন বা চর্বি আছে। অতিরিক্ত সুগার বা প্রিজারভেটিভ নেই এমন শুকনো ফল খান।

৪. তরল খাদ্য পান করুন
কঠিন খাবারের তুলনায় তরল খাবার ওজন বাড়াতে অতটা সহায়ক নয়। তবে তরল খাবার আপনাকে পর্যাপ্ত পরিমাণে পুষ্টি সরবরাহ করবে। দুধ এবং অন্যান্য তরলজাতীয় খাবার খান নিয়মিতভাবে।

৫. বিছানায় যাওয়ার আগে খাবার খান
দেহের রোগমুক্তি, মেরামত এবং পুনর্গঠন হয় মূলত ঘুমের মধ্যে। ফলে ঘুমাতে যাওয়ার আগে একটি তাজা এবং স্বাস্থ্যকর জল-খাবার আপনাকে যথেষ্ট শক্তির যোগান দেবে যখন আপনি ঘুমিয়ে থাকবেন।