দর্পণ৷ আয়না৷ বলা হয় মুখই নাকি মনের আয়না৷ তাই মন পরিষ্কার থাকলেই মুখেও তার প্রতিফলন দেখা যায়৷ আর নিজেকে খুশি রাখা নিজের হাতেই অনেকটা৷ তবে এই খুশি অনেকটা নির্ভর করে আপনার বাড়ির পরিবেশ এবং পকেটের অবস্থা কতটা ভালো রয়েছে তার ওপর৷ আর এগুলো অনেকটাই আবার নির্ভর করে বাস্তুবিজ্ঞানের ওপর৷ এই বাস্তুবিজ্ঞান মতে বাস্তুদোষ দূর করতে পারে কিন্তু আয়না৷ বাড়ির নির্দিষ্ট কোণে যদি আয়না লাগান তাহলে কিন্তু কেল্লাফতে৷ শুধু যে পরিবেশেরই উন্নতি তাই নয় সেই সঙ্গে ব্যাংক ব্যালান্সও নাকি বাড়তে পারে হু হু করে৷

১) বলা হয়ে থাকে সকালে ঘুম থেকে উঠেই আয়নায় কখনও নিজের চেহারা দেখা উচিত নয়, তাতে নেগেটিভ এনার্জি প্রবেশ করতে পারে শরীরে৷

২) বাস্তুবিজ্ঞান অনুযায়ী ঘরের পূর্ব দিকে আয়না রাখলে তাতে স্বাস্থ্যের ওপর ভালো প্রভাব পড়ে৷ সন্তানসুখের সম্ভাবনাও থাকে৷

৩) ঘরের উত্তর দিকে দরজা-জানলা না থাকলে এখানে আয়না রাখা উচিত৷ উত্তর দিকটি ধনদেবতা কুবেরের দিক বলে মনে করা হয়৷ তাই এখানে আয়না রাখার কথাটি ভেবে দেখতে পারেন৷

৪) উত্তর দিকে আয়না লাগানো সম্ভব না হলে পূর্বদিকে আয়না রাখতে পারেন, এর ফলেও ধনবৃদ্ধি হতে পারে৷৫) রান্নাঘরের সামনে আয়না রাখলে তাতেও কিন্তু উন্নতির সম্ভাবনা রয়েছে৷

৫) রান্নাঘরের সামনে আয়না রাখলে তাতেও কিন্তু উন্নতির সম্ভাবনা রয়েছে৷